History

কারিগরি শিক্ষায় অনন্য ভূমিকায়
টেক্সটাইল ইন্সটিটিউট, দিনাজপুরঃ

সুতা থেকে কাপড় বুননের উপর বাঙলীদের প্রশিক্ষণের জন্য বৃটিশ সরকার অবিভক্ত ভারতবর্ষে ১৯১১ খ্রিঃ হতে ১৯২৯ খ্রিঃ সময়ের মধ্যে ৯টি উইভিং স্কুল এবং ২৫টি পেরিপেটেটিক স্কুল প্রতিষ্ঠা করে। উইভিং স্কুল গুলো ডিষ্ট্রিক উইভিং (জেলা বয়ন বিদ্যালয়) নামে পরিচিত ছিল। এগুলোর মধ্যে বর্তমান দিনাজপুর টেক্সটাইল ইন্সটিটিউট ১৯২৬ খ্রিঃ খুলনায় স্থাপিত হয় যা ১৯৬০-১৯৬১ শিক্ষাবর্ষে দিনাজপুরের জনৈক কৃতি সন্তানের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় খুলনা হতে দিনাজপুরে স্থানান্তরিত হয়। সাবেক দিনাজপুর জেলা বয়ন বিদ্যালয়ে ১ বছর মেয়াদি আর্টিজেন কোর্স বিষয়ে শিক্ষাদান করা হতো। ১৯৮০ খ্রিঃ তত্কালীন সরকার জেলা বয়ন বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে ‍জেলা টেক্সটাইল ইন্সটিটিউট নাম করণ করতঃ ১ বছর মেয়াদি আর্টিজেন কোর্স বিলুপ্ত করে ২ বছর মেয়াদি সার্টিফিকেট কোর্স প্রবর্তন করেন। পরবর্তীতে বস্ত্র শিল্প কারখানায় মধ্যমানের প্রযুক্তিবিদের ব্যাপক চাহিদার ভিত্তিতে ১৯৯৩-১৯৯৪ শিক্ষাবর্ষ হতে একটি উন্নয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে ৩ বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা-ইন-টেক্সটাইল টেকনোলজি কোর্স চালু করা হয় এবং সার্টিফিকেট কোর্স বিলুপ্ত করা হয়। উক্ত কোর্সের অনুমোদিত আসন সংখ্যা ছিল ৫০। ক্রমান্বয়ে আসন সংখ্যা বৃদ্ধি করে ৮০ তে উন্নীত করা হয়। ২০০১-২০০২ শিক্ষাবর্ষ হতে কোর্সের মেয়াদকাল ৩ বছর থেকে বাড়িয়ে ৪ বছর করা হয় এবং কোর্সের নাম পরিবর্তন করে ডিপ্লোমা-ইন-টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং নাম করণ করা হয়। ‌বস্ত্র শিপ্লে ক্রমবর্ধমান চাহিদার প্রেক্ষিতে সরকার ২০০৪-২০০৫ শিক্ষাবর্ষ হতে একটি কর্মসূচির আওতায় দ্বিতীয় শিফটের মাধ্যমে ডিপ্লোমা-ইন-টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষাক্রম চালু করেন যার আসন সংখ্যা ছিল ৮০। দ্বিতীয় শিফটে ভর্তিকৃত ছাত্র-ছাত্রীরা ২০১২-২০১৩ শিক্ষাবর্ষ পর্যন্ত সমাপ্ত হয়েছে। তারপর ২০১৫-২০১৬ শিক্ষাবর্ষ পর্যন্ত এক শিফটে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করা হত। বর্তমানে চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকে আবার প্রথম ও দ্বিতীয় শিফটে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করা হচ্ছে। যার আসন সংযা- ২৪০।

Updated: 30/11/2016 — 7:17 am

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

TEXTILE INSTITUTE, DINAJPUR © 2016 | Site Design by MD.FEROSE.| Site Update by Lutfor Rahman.